1. gmjakirhossain1@gmail.com : jakir ub24 : jakir ub24
  2. ahshohag812@gmail.com : shohag : shohag
  3. hossaineleyas122@gmail.com : sk eleyas : sk eleyas
  4. Mahfuzul.karim99@gmail.com : ub24 001 : ub24 001
  5. admin@www.updatebarta24.com : updatebarta24 :
অস্ত্রসহ’ আটকদের ছেড়ে দেওয়ার অভিযোগ ওসির বিরুদ্ধে - আপডেট বার্তা24
January 26, 2022, 10:05 am
সর্বশেষ সংবাদ
বহিষ্কৃত হলেন ছাত্র লাঞ্ছনায় অভিযুক্ত সুমাইয়া ও অনিকা মাগুরার মহম্মদপুরে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত১,আহত ১ তুচ্ছ ঘটনায় ছাত্রীর হাতে জাবি ছাত্র হেনস্থার শিকার সাংবাদিক নিয়োগ দিচ্ছে জনপ্রিয় নিউজ পোর্টাল আপডেট বার্তা24 রাজধানীতে মাদকবিরোধী অভিযানে গ্রেফতার ৫২ পুলিশে প্রথমবারের মতো পদোন্নতিপ্রাপ্ত অতিরিক্ত আইজিগণ তাঁদের সহধর্মিণীগণের উপস্থিতিতে র‍্যাংক ব্যাজে ভূষিত সাতক্ষীরা আদালত চত্ত্বরে অনলাইন প্রেসক্লাবের মাস্ক ও সাবান বিতরণ আপত্তিকর ছবি তুলে প্রতারণার ফাঁদ পাততেন তারা মেয়াদ শেষে জেলা পরিষদে বসবেন প্রশাসক, প্রতি জেলায় একজন সদস্য সাইবার ক্রাইম ইনভেস্টিগেশন সেল, সাতক্ষীরা কর্তৃক বিকাশ প্রতারক চক্রের মূল হোতা আটক, হাতিয়ে নেওয়া টাকা ও প্রতারণার কাজে ব্যবহৃত মোবাইল জব্দ।




অস্ত্রসহ’ আটকদের ছেড়ে দেওয়ার অভিযোগ ওসির বিরুদ্ধে

  • আপডেট : Tuesday, January 4, 2022
  • 27 বার সংবাদটি পড়া হয়েছে

নোয়াখালী প্রতিনিধিঃ

নোয়াখালীর সোনাইমুড়ী থানায় ‘অস্ত্রসহ’ আটক তিন যুবককে টাকার বিনিময়ে ছেড়ে দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় তিন সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করেছে জেলা পুলিশ।

মঙ্গলবার (৪ ডিসেম্বর) সকালে পুলিশ সুপার মো. শহীদুল ইসলাম বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

তদন্ত কমিটির সদস্যরা হচ্ছেন-অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (প্রশাসন ও অপরাধ) দীপক জ্যোতি খীসা, সহকারী পুলিশ সুপার (চাটখিল সার্কেল) সাইফুল আলম খান ও সদর সার্কেলের পরিদর্শক এনামুল হক।

বৃহস্পতিবার (৩১ ডিসেম্বর) দিনগত রাতে সোনাইমুড়ী থানার বজরা ইউনিয়ন থেকে ‘অস্ত্রসহ’ তিন যুবককে আটক করেন সহকারী উপ-পরিদর্শক (এএসআই) মো. সোহেল রানা।

আটকরা হচ্ছেন-সোনাইমুড়ীর পূর্ব চাঁদপুর গ্রামের মো. নুরনবীর ছেলে মো. সুমন (৩১), মৃত সিরাজ মিয়ার ছেলে মো. মাঈন উদ্দিন (২৯) ও ফরিদপুরের ভাঙ্গা থানার দীঘিরপাড় গ্রামের মৃত আমিনুল ইসলামের ছেলে জিসান আহমেদ (২৫)।

এ বিষয়ে এএসআই সোহেল রানা জাগো নিউজকে বলেন, ‘নির্বাচন উপলক্ষে ডিউটি করার সময় সন্দেহভাজন তিন যুবককে একটি পিস্তল-সদৃশ (চায়না দিয়াশলাই) বস্তুসহ আটক করে থানায় নিয়ে আসি। আটকের একঘণ্টা পর ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) তহিদুল ইসলাম তাদের ছেড়ে দিয়েছেন।’

পিস্তলটি খেলনা হলে পুলিশ কর্মকর্তা হিসেবে আপনার চেনার কথা আর খেলনাই যদি হয় তাদের আটক করা হলো কেন? এমন প্রশ্নের কোনো সদুত্তোর না দিয়ে সোহেল রানা বলেন, ‘নৌকার প্রার্থী থানায় আসার পর ভোররাতে তাদের ছেড়ে দেওয়ার নির্দেশ দেন ওসি।’

স্থানীয় একাধিক সূত্র জানায়, আটকরা বজরা ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচনে আওয়ামী লীগ মনোনীত নৌকা প্রতীকের প্রার্থী মীরন অর রশিদের আত্মীয় ও বহিরাগত অনুসারী। আটকের পর প্রার্থী মীরন থানায় গিয়ে রাতেই ‘টাকার বিনিময়ে’ তাদের ছাড়িয়ে নিয়ে আসেন। পরে পুলিশ অস্ত্রটি ‘খেলনা’ বলে প্রচার করে।

তদন্ত কমিটির প্রধান অতিরিক্ত পুলিশ সুপার দীপক জ্যোতি খীসা বলেন, তিন কর্মদিবসের মধ্যে তদন্ত প্রতিবেদন জমা দেওয়া হবে। তদন্তে দোষী সাব্যস্তদের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

এ বিষয়ে সহকারী পুলিশ সুপার (চাটখিল সার্কেল) সাইফুল আলম খান কোনো মন্তব্য করতে রাজি হননি।

সোনাইমুড়ী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) তহিদুল ইসলামকে একাধিকবার কল দেওয়া হলেও তিনি রিসিভ করেননি।




নিউজ টা আপনার টাইমলাইনে শেয়ার করে সবাইকে দেখার সুযোগ করে দিন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরির অন্যান্য সংবাদসমূহ




ক্যাটাগরিভিত্তিক সংবাদসমূহ

আপডেট বার্তা24 এ প্রকাশিত কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।
Theme Customized By BreakingNews
Translate »
error: Content is protected !!