1. [email protected] : jakir ub24 : jakir ub24
  2. [email protected] : shohag : shohag
  3. [email protected] : ub24 001 : ub24 001
  4. [email protected] : updatebarta24 :
পাটগ্রামের ঘোষপাড়া সার্বজনীন মন্দির ধর্মীয় সম্প্রীতির অনন্য নিদর্শন - আপডেট বার্তা24
October 24, 2021, 3:06 am
সর্বশেষ সংবাদ
ইউপি নির্বাচনকে কেন্দ্র করে বৈকারীর মাদক ব্যবসায়ী শফিকুল ইসলাম মিলন বেপরোয়া সাতক্ষীরার দেবহাটা ও কালিগঞ্জে নৌকার মনোনয়ন পেলেন যারা নাগরপু‌রে অ‌বৈধ মা‌টির ট্রলিগু‌লো পু‌রো‌নো রু‌পে ফি‌রে যা‌চ্ছে পাটগ্রামে জমির সীমানায় সুপারি চারাকে কেন্দ্র করে প্রতিপক্ষের লাঠির আঘাতে নিহত -১ জামালপুরে ইউপি নির্বাচনে প্রার্থীর মনোনয়ন যাচায়ে অনিয়মের অভিযোগ ভারতে পাচার হওয়া ১৯ বাংলাদেশি নারীকে বেনাপোল চেকপোস্ট দিয়ে হস্তান্তর বড় জয়ে সুপার ‍টুয়েলভে বাংলাদেশ বকশীগঞ্জে আটক ১৪ জামাত নেতাকর্মীদের আদালতে সোপর্দ স্বাধীনতা বিরোধী শক্তি দেশকে অস্থিতিশীল করতে জ্বালাও পোড়াও শরু করেছে রেলপথ মন্ত্রী-নূরুল ইসলাম সুজন সাতক্ষীরার আগরদাড়ীতে আ’লীগের মনোনিত চেয়ারম্যান প্রার্থী মঈনুল ইসলামের নির্বাচনী প্রচারনা




পাটগ্রামের ঘোষপাড়া সার্বজনীন মন্দির ধর্মীয় সম্প্রীতির অনন্য নিদর্শন

  • আপডেট : Tuesday, October 12, 2021
  • 24 বার সংবাদটি পড়া হয়েছে
ফরিদুল ইসলাম রানা,
লালমনিরহাট জেলা প্রতিনিধিঃ

লালমনিরহাটের পাটগ্রামের  ৩ নং জোংড়া ইউনিয়নের ঘোষপাড়া  সার্বজনীন দূর্গা মন্দির ১৯৭১ সালের পর থেকে ধর্মীয় সম্প্রীতির অনন্য নিদর্শন রেখে পূজা করে আসছেন বলে দেখা গেছে।

সরেজমিনে  গিয়ে দেখা যায়, হিন্দু ধর্মাবলম্বীরা তাদের পূজা করছেন এবং মসজিদের আজানের সময় মাইক বন্ধ রেখে অন্যদের ক্ষতি না করে পূজা চালিয়ে যাচ্ছেন।
অন্যদিকে মুসলিম ধর্মালম্বীরা মসজিদের আজানে নামাজ আদায় করতে মসজিদে যাচ্ছেন। দেখে বুঝার উপায় নেই দুজনে ভিন্ন  ধর্মীয় বিশ্বাসের মানুষ এ যেন এক ধর্মীয় সম্প্রীতির মিলন মেলা।

মন্দির কমিটির সভাপতি জগন্নাথ ঘোষ বলেন,ধর্মীয় রীতিনীতি ও সংস্কৃতির ভিন্নতা থাকলেও আমরা সবাই মানুষ, আমাদের সবার এক উদ্দেশ্য সেটি হলো, অন্যায় কাজ থেকে বিরত থাকা ভালো কাজকে গ্রহণ করা।

মন্দির কমিটির সাধারণ সম্পাদক সঞ্জয় কুমার ঘোষ বলেন,১৯৭২ সাল থেকে নির্বিঘ্নে আমরা আমাদের ধর্মীয় উৎসব পালন করে আসছি। এখানে মুসলিম-হিন্দু  এক অনন্য সম্প্রীতির বন্ধনে আবদ্ধ।আমাদের এ মন্দিরটি নিজস্ব অর্থায়নে হয়েছিল।আমরা ২৫ টি পরিবার এখানে বসবাস করি। প্রতিবারেই ৫ দিন ব্যাপী পূজা পালন করা হয়। এখানে রাঁধা গোবিন্দ মন্দির রয়েছে ও নিত্য পুজা করা হয়।এখানে ৫০ বছরেও ধর্ম পালনে কোন সমস্যা হয়নি ।এবারের প্রতিমা ব্যায় ১ লাখ ৫০ হাজার টাকা ধরা হয়েছে।আশাকরি সামনের বছর আরও বেশি ব্যয় করতে পারব।গতবার কম লোক সমাগম হলেও এবার মুখে মাস্ক সহ সব নিয়ম মেনে লোকের সমাগম বেশি হবে বলে মনে করছি।আগামী পূজায় আমরা মন্দিরের ৫০ বছর পূর্তি পালন করব।উল্লেখ্য যে, এবারে পাটগ্রাম উপজেলায় ২৮ মন্দিরে পূজা পালন করবে হিন্দু ধর্মাবলম্বীরা।
সবশেষে ধর্ম যার যার রাষ্ট্র সবার বলেও জানান তিনি।




নিউজ টা আপনার টাইমলাইনে শেয়ার করে সবাইকে দেখার সুযোগ করে দিন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরির অন্যান্য সংবাদসমূহ




ক্যাটাগরিভিত্তিক সংবাদসমূহ

আপডেট বার্তা24 এ প্রকাশিত কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।
Theme Customized By BreakingNews
Translate »
error: Content is protected !!